খুলনা | সোমবার | ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৪ |

Shomoyer Khobor

স্থগিত হলো যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কার্যক্রম

১০ লাখ সরকারি কর্মীকে ছুটিতে পাঠানোর শঙ্কা

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ২১ জানুয়ারী, ২০১৮ ০০:১০:০০

ক্ষমতা গ্রহণের এক বছর পূর্তিতে কঠিন পরিস্থিতিতে পড়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। আগামী ১৬ ফেব্র“য়ারি পর্যন্ত বাজেট বাড়ানো সংক্রান্ত একটি বিলে সিনেটররা একমত হতে না পারায় স্থগিত হয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কার্যক্রম। স্থানীয় সময় গত শুক্রবার মধ্যরাতের মধ্যেই বিলটি সিনেটে পাসের বাধ্যবাধকতা ছিল। তবে  শেষ মুহূর্তেও এ নিয়ে দুই বড় দলের সিনেটররা বিষয়টিতে একমত হতে পারেননি।
বিলটি পাসের জন্য সিনেটে এ সংক্রান্ত ভোটাভুটিতে ৬০টি ভোট প্রয়োজন ছিল। স্থানীয় সময় শুক্রবার মধ্যরাতে ভোটাভুটিতে সেখানে পক্ষে ২৩০ আর বিপক্ষে ১৯৭।  তবে সিএনএন-এর খবরে বলা হয়েছে, মধ্যরাত থেকে সরকারি কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। তবে জাতীয় নিরাপত্তা, পোস্ট, বিমান চলাচল নিয়ন্ত্রণ, হাসপাতাল, দুর্যোগ সহায়তা, কারাগার, আয়কর ও বিদ্যুৎ উৎপাদনের মতো অত্যাবশ্যকীয় সেবা খাতগুলো চালু থাকবে।
মার্কিন সিনেটে বিলটি পাস করানোর মতো পর্যাপ্ত সংখ্যাগরিষ্ঠতা নেই ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান পার্টির। দলটির হাতে আছে ৫১টি আসন। ফলে বিলটি নিয়ে তাদের ডেমোক্র্যাটদের দ্বারস্থ হতে হয়। কিন্তু ডেমোক্র্যাট শিবিরে এ নিয়ে বিভক্তি রয়েছে।
আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, সিনেট অধিবেশনের কয়েক ঘণ্টা আগেও মনে হচ্ছিল সিনেটররা প্রস্তাবিত ওই বিলে একমত হতে পারবেন না। ফলে সরকারি কার্যক্রম স্থগিত হওয়ার বিষয়টি অনেকটা অবশ্যম্ভাবী ছিল। সর্বশেষ ২০১৩ সালে টানা ১৬ দিনের জন্য এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। এ ধরনের পরিস্থিতিতে জাতীয় উদ্যান, জাদুঘরসহ বিভিন্ন স্থাপনা বন্ধ করে দেওয়া হয়। এমনকি পাসপোর্ট ও ভিসা প্রক্রিয়াও বন্ধ হয়ে যায়, যা পর্যটন খাতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।
এর আগে সর্বশেষ ২০১৩ সালের শাটডাউনে প্রায় সাড়ে আট লাখ কর্মীকে সাময়িক ছুটিতে পাঠানো হয়। এবার এ সংখ্যা ১০ লাখে দাঁড়াতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান সদস্যরা বারাক ওবামার স্বাস্থ্য নীতিতে অর্থায়নে রাজি না হওয়ায় ১৬ দিন শাট ডাউন ছিল। তার আগে ১৯৯৫ সালের ডিসেম্বর থেকে ১৯৯৬ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত ২৭ দিন শাট ডাউন চলেছিল। সেবার স্বাস্থ্য বীমা নিয়ে রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে মতবিরোধের জেরে এমন ঘটনা ঘটেছিল। সূত্র বিবিসি, আল জাজিরা, সিএনএন।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ


এক আসামিকে ৪ বার মৃত্যুদণ্ড

এক আসামিকে ৪ বার মৃত্যুদণ্ড

১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০০:০০




গরীব দিদির সাংসদরা  কোটিপতি : সমীক্ষা

গরীব দিদির সাংসদরা  কোটিপতি : সমীক্ষা

১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০০:১০




নেপালের প্রধানমন্ত্রী দেউবার পদত্যাগ

নেপালের প্রধানমন্ত্রী দেউবার পদত্যাগ

১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০০:১০




ব্রেকিং নিউজ