অভিনেতা সিরাজ হায়দার আর নেই


না ফেরার দেশে চলে গেলেন বিশিষ্ট চলচ্চিত্র অভিনেতা ও পরিচালক সিরাজ হায়দার। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর কল্যাণপুরের নিজ বাসায় হৃদরোগে আক্রান্তে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন-আমরা তো আল্লাহর  এবং আমরা আল্লাহর কাছেই ফিরে যাব) । তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর।
সিরাজ হায়দারের বড় ছেলে নাট্য নির্মাতা লেলিন হায়দার বলেন, গতকাল ভোর ৬টা ১৫ মিনিটের দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বাবা মারা যান। সবাই আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন। মৃত্যুকালে স্ত্রী অভিনেত্রী মিনা হায়দার, দুই ছেলে, এক মেয়ে ছাড়াও অসংখ্য গুণগ্রাহী ও আত্মীয়-স্বজন রেখে গেছেন প্রয়াত সিরাজ। তার গ্রামের বাড়ি মুন্সীগঞ্জের মীরকাদিমে।
এদিকে অভিনেতার মৃত্যুর খবরে তার বাসায় ছুটে গেছেন চলচ্চিত্র শিল্পী ও কলাকুশলীরা। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক বজলুর রশিদ বলেন, শ্রদ্ধা জানানোর জন্যে সিরাজ হায়দারের মরদেহ বিএফডিসিতে নেওয়া হবে। সেখানেই বাদ জোহর তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয় বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির মহাসচিব মুশফিকুর রহমান গুলজার।
অভিনয়ের সঙ্গে পঞ্চান্ন বছরের বেশি সময় ধরে জড়িয়ে ছিল সিরাজ হায়দারের নাম। এই দীর্ঘ সময়ে তিনি অভিনয় করেছেন যাত্রা, মঞ্চ, রেডিও, টেলিভিশন এবং চলচ্চিত্রে। ১৯৬২ সালে পূর্ব পাকিস্তান জাতীয় দিবসে টিপু সুলতান নাটকে করিম শাহ চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে অভিনয় শুরু করেন ওই সময়ে নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া সিরাজ। মুক্তিযুদ্ধের পর চলচ্চিত্র পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুনের সহকারী হিসেবে জল্লাদের দরবার নামক চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন। প্রথম অভিনীত চলচ্চিত্রের নাম সুখের সংসার। নারায়ন ঘোষ মিতা পরিচালিত এ চলচ্চিত্রে খলনায়ক চরিত্রে অভিনয় করেন সিরাজ হায়দার।
 


footer logo

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।