খুলনা | বৃহস্পতিবার | ১৯ জুলাই ২০১৮ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

বিএল কলেজে সহিংসতার টার্গেট ছিল ছাত্রলীগের : র‌্যাব

দৌলতপুরে দেশী অস্ত্র উদ্ধার ঘটনায় আটক দু’জনের রিমান্ড শুনানী ১২ ডিসেম্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০১:১০:০০

দৌলতপুরে দেশী অস্ত্র উদ্ধার ঘটনায় আটক দু’জনের রিমান্ড শুনানী ১২ ডিসেম্বর

নগরীর দৌলতপুরস্থ মোল্লা শপিং কমপ্লেক্সের ৪র্থ তলার একটি কক্ষ থেকে দেশী অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় দু’জনের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত শনিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে দৌলতপুর থানায় র‌্যাবের ডিএডি বদিউজ্জামান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার এজাহারভুক্ত আসামিরা হলো দিঘলিয়ার দেয়াড়ার মান্নান হাওলাদারের ছেল মোঃ আলামিন হাওলাদার (৩৪) ও খালিশপুরের গোয়ালখালী এলাকার মুরশিদ আলম (৩০)।
র‌্যাব-৬’র সিপিসি-১ লেঃ কমান্ডার জাহিদ জানান, বিএল কলেজের ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিব মোড়ল ও সাধারণ সম্পাদক নিশাদ ফেরদৌস অনি’র মধ্যে কিছুদিন ধরে আধিপত্য বিস্তারের লড়াই চলছে। এ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হামলার ঘটনাও ঘটেছে। র‌্যাবের গোয়েন্দা তথ্য মতে কলেজ ক্যাম্পাসে বড় ধরনের সহিংস ঘটনা সৃষ্টি করার জন্য তাদের মধ্যে পরিকল্পনা চলছিল।
তিনি জানান, গত শনিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই মার্কেটে অভিযান চালিয়ে ২২টি দামদা, ১টি ছোরা ও ২টি ডেগার উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় তিনজনকে আটক করা হলেও একজন নির্দোষ ব্যক্তি হওয়ায় তাকে প্রাথমিক তদন্ত শেষে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।  দেশী অস্ত্রসহ আটক দু’জন সভাপতি রাকিব মোড়লের অনুসারী বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছে।  গ্রেফতারকৃত আলামিনের বিরুদ্ধে দিঘলিয়া থানায় পূর্বের মাদক ও দৌলতপুরে অস্ত্র মামলা রয়েছে।
এদিকে মামলার এজাহারভুক্ত দু’জনকে গতকাল রবিবার ৫ দিনের রিমান্ড আবেদনসহ আদালেতে সোপর্দ করা হয়েছে। মহানগর হাকিম মোঃ আমিরুল ইসলাম তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন। এছাড়া রিমান্ড আবেদনের শুনাণীর জন্য আগামী ১২ ডিসেম্বর দিন নির্ধারণ করেছেন।
উল্লেখ্য, দৌলতপুরস্থ মোল্লা শপিং কমপ্লেক্সের ৪র্থ তলার একটি কক্ষে গত শনিবার রাত সাড়ে ৮টা থেকে ঘন্টাব্যাপি অভিযান চালায় র‌্যাব -৬। এসময় ২৫টি দেশী অস্ত্রসহ ৩ জনকে আটক করা হয়। 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ