খুলনা | মঙ্গলবার | ২৩ জানুয়ারী ২০১৮ | ১০ মাঘ ১৪২৪ |

Shomoyer Khobor

খুলনা মডেল স্কুল এন্ড কলেজসহ ১২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারিকরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:৪৬:০০

খুলনা মডেল স্কুল এন্ড কলেজসহ সারাদেশের উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের ১২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সরকারিকরণ করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতির নির্দেশক্রমে গতকাল সোমবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের (সরকারী মাধ্যমিক-১) উপ-সচিব আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন স্বাক্ষরিত স্মারকে এ তথ্য জানা গেছে। বাংলাদেশ ফরমস ও প্রকাশনা অফিসের উপ-পরিচালককে প্রজ্ঞাপনটি পরবর্তী গেজেটে প্রকাশে অনুরোধ জানানো হয়েছে।
খুলনা মডেল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শেখ হারুনর রশীদ প্রতিষ্ঠানটি জাতীয়করণ হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী, খুলনার সদ্য বিদায়ী বিভাগীয় কমিশনারসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি অকৃত্রিম কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। বিদ্যালয়ে প্রায় এক হাজার ৮০০ শিক্ষার্থী অধ্যায়নরত। নিয়মিত ২৭ জন ও খন্ডকালীন ৮ জন শিক্ষক রয়েছেন। আশা করছি-প্রতিষ্ঠানটি এ অঞ্চলের শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়নে ও শিক্ষা বিস্তারে অসামান্য ভূমিকা রাখবে।
জাতীয়করণ হওয়া অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে যশোর শিক্ষা বোর্ড মডেল কলেজ, ঢাকার মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, মিরপুরের রূপনগর মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, ঢাকার লালবাগ মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, শ্যামপুর মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, চট্টগ্রাম মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, রাজশাহী মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, বরিশাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, সিলেট মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড মডেল কলেজ ও রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড মডেল স্কুল এন্ড কলেজ। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কোন শিক্ষক অন্যত্র বদলি হতে পারবেন না বলে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
মডেল স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস : ২০০৭ সালে ঢাকা মহানগরীসহ দেশের ছয়টি বিভাগীয় শহরে ১১টি মডেল স্কুল ও কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হয়। এর মধ্যে খুলনা শহরের বয়রার জলিল সরণীর উত্তর পাশে সরকারি দুই একর জমির উপর খুলনা মডেল স্কুল এ্যান্ড কলেজ স্থাপিত হয়। ড. মোল্লা জালাল উদ্দিন ২০০৭ সালের ১২ এপ্রিল এ প্রতিষ্ঠানটির প্রথম অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেন। একই বছরের ২ জুলাই থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক পর্যায়ক্রমে শিক্ষক ও কর্মচারীদের নিয়োগ দেয়া হয়। ২০০৭-২০০৮ শিক্ষাবর্ষে উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তি শুরু হয়। পরবর্তীতে ২০০৮ সালে মাধ্যমিক ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ষষ্ঠ-দশম শ্রেণীর শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়েছিল। প্রতিষ্ঠানটিতে বর্তমানে পাঁচতলা চর্তুভুজ আকৃতির ভবনটিতে ৭৫টি কক্ষ, ১০টি বিজ্ঞানাগার, ৫০টি কম্পিউটার সমৃদ্ধ একটি আধুনিক ল্যাব, একটি লাইব্রেরি, দু’টি ব্যায়ামাগার রয়েছে। খুলনা বিভাগীয় কমিশনার প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনা পর্ষদের সভাপতিত্ব করেন।

 

 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ


এইচএসসি পরীক্ষা  ২ এপ্রিল শুরু

এইচএসসি পরীক্ষা  ২ এপ্রিল শুরু

১৬ জানুয়ারী, ২০১৮ ০০:১৫







পরিমার্জিত হলো মাধ্যমিকের ১১ পাঠ্যবই

পরিমার্জিত হলো মাধ্যমিকের ১১ পাঠ্যবই

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২৩:৫৯





ব্রেকিং নিউজ