খুলনা | বুধবার | ১৭ অক্টোবর ২০১৮ | ২ কার্তিক ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

খুলনার ভৈরব নদের তীরে স্ত্রী ফজিলাতুন্নেছার নামে বঙ্গবন্ধুর কেনা একখন্ড ভূমি

কাজী মোতাহার রহমান | প্রকাশিত ১৫ অগাস্ট, ২০১৭ ০০:৪৫:০০

মহানগরীর রেলীগেটের বিপরীতে ভৈরব নদের তীরে দিঘলিয়া মৌজা। এ মৌজায় বারুইঘাটের কাছে এক খন্ড জমির সাথে স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতি বিজড়িত। তখন পাকিস্তান জামানা। জেঃ প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান এর শাসনামল। স্ত্রী বেগম ফজিলাতুন্নেছার নামে এক খন্ড জমি কেনেন বঙ্গবন্ধু। ছয় যুগেরও বেশি সময় আগে পাট এর ব্যবসা ও কাঁচা পাটের সংরক্ষণের জন্য দিঘলিয়ায় জমির প্রয়োজন হয়। পাট অধ্যুষিত পাটগাতীতে গুদাম ছিল না, মোকাম হিসেবে পাটগাতীর সুনাম ছিল।
ফরিদপুরের প্রত্যন্ত অঞ্চলে পাটের উৎপাদন ছিল দৃশ্যমান। মধুমতি নদীর তীরে পাটগাতী ছিল পাকিস্তান আমলে বড় ধরনের মোকাম। পাট সংরক্ষণের জন্য এখানে কোন গুদাম ছিল না। নদী পথে খুলনায় আনতে হত। নৌকায় পাট বোঝাই করে খুলনার গুদামে কাঁচা পাট রাখা হতো। নারায়ণগঞ্জ ও খুলনার পাট কলের চাহিদার প্রয়োজনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব দিঘলিয়া মৌজায় তার স্ত্রী ফজিলাতুন্নেছার নামে এক খন্ড জমি কেনেন। জমির পরিমাণ চার বিঘা। এখানে গড়ে উঠে পাট গুদাম। স্থানীয় বিশিষ্টজন মোসলেম বাওয়ালী (বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান-এর পিতা) এ পাট গুদাম দেখাশুনা করতেন। স্থানীয়দের ভাষ্য অনুযায়ী রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হওয়ার পর রেলিগেটের তীরে দাঁড়িয়ে রাষ্ট্রনায়ক বঙ্গবন্ধু দূর থেকে জমিটি এক পলক দেখেন। জীবদ্দশায় তাঁর আর এখানে আসার সুযোগ হয়নি। ১৯৭৫ সালের পরবর্তীতে ১৬ হাজার বর্গফুট এলাকার এ জমির প্রতিফুটের ভাড়া ১৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়। আ’লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য, সংসদ সদস্য বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত এই ভূখন্ড তদারকি করেন। তার (মুন্নুজান সুফিয়ান) দেওয়া তথ্যমতে বঙ্গবন্ধু তাঁর স্ত্রী ফজিলাতুন্নেছার নামে এ স¤পত্তি ক্রয় করেন। এখানকার গুদাম মেসার্স আজাদ ব্রাদার্সের কাছে ভাড়া দেয়া হয়েছে। সোনালী ব্যাংকের দেনা থাকায় আজাদ ব্রাদার্সের মালিক এখানে অনুপস্থিত। খালি জায়গা দেখাশুনা করেন দিঘলিয়া উপজেলার বাসিন্দা শেখ আবুবকর। তিনি এখানে কলমী শাক, সজিনা, পেঁপে, আম ও মেহেগুনি গাছ রোপণ করেছেন। শেখ পরিবারের কয়েকজন সদস্য গত রবিবার বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত স্থানটি পরিদর্শন করেন।  আগামীতে এখানে আধুনিক স্থাপনা গড়ে উঠবে।

 

বার পঠিত

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ











‘বাংলাদেশে কোন সংখ্যালঘু নেই’ 

‘বাংলাদেশে কোন সংখ্যালঘু নেই’ 

১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:৩৭



ব্রেকিং নিউজ











‘বাংলাদেশে কোন সংখ্যালঘু নেই’ 

‘বাংলাদেশে কোন সংখ্যালঘু নেই’ 

১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:৩৭