খুলনা | সোমবার | ২১ মে ২০১৮ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

রাজনীতিবিদ-ব্যবসায়ীসহ সাধারণ মানুষ আতঙ্কে

নির্মূলের কথা বলা হলেও খুলনায় চরমপন্থিরা সক্রিয়

সোহাগ দেওয়ান | প্রকাশিত ২৮ মে, ২০১৭ ০২:৩০:০০

অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্রের ব্যবহার ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বেড়েছে খুলনায়। চলতি বছরের শুরু থেকে মহানগরসহ জেলাতে একাধিক খুনের ঘটনার পর থেকে রাজনীতিবিদ, জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ীসহ সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে নির্মূলের কথা বলা হলেও কাজের মধ্যে চরমপন্থি ও সন্ত্রাসীরা রয়েছে সক্রিয়। সন্ত্রাসীদের বুলেটের কাছে ছাড় পাচ্ছে না ব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদ ও সাধারণ পথচারী। টাকার বিনিময়ে বরাবরের মতোই মানুষ হত্যা করছে তারা। তবে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দাবি অপরাধ দমনে সর্বাত্মক চেষ্টা করা হচ্ছে।
চলতি বছরের শুরুতেই নগরীর দোলখোলা এলাকায় শিপ্রা কুন্ডু নামের এক ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রী সন্ত্রাসীর গুলিতে নিহত হন। গত ৩১ ডিসেম্বর নগর আ’লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জেড এ মাহমুদ ডনকে হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসীদের ছোড়া গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে গৃহবধূ শিপ্রা রানী কুন্ডু নিহত হন। গত ৩ ফেব্র“য়ারি ফুলতলায় বেজেরডাঙ্গা রেলস্টেশন রোডে দুর্বৃত্তের গুলি ও বোমায় যুবলীগ কর্মী জনি মোল্লা নিহত হন। গত ৫ ফেব্র“য়ারি বটিয়াঘাটা উপজেলার আমিরপুর ইউনিয়নের যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম খানকে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। গত ১৫ ফেব্র“য়ারি নগরীর আহসান আহমেদ রোডর বাসিন্দা ব্যবসায়ী নাজমুল আহসান রনিকে দুস্কৃতকারীরা গুলি করে। গত ২৩ মার্চ নগরীর পিটিআই মোড়ে দিনে দুপুরে প্রাইমারী শিক্ষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রশিক্ষক মাহাবুব মোস্তফা আঙ্গুর (৩৬) কে গুলি করে দুর্বৃত্তরা।  সেদিন শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে মোটরসাইকেল যোগে দু’জন সন্ত্রাসী তাকে লক্ষ্য করে গুলি করে সন্ত্রাসীরা দ্রুত পালিয়ে যায়।
সর্বশেষ গত ২৫ মে ফুলতলা উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার আলাউদ্দিন মিঠু ও তার দেহরক্ষী নওশের আলী গাজীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় গতকাল শনিবার নিহত মিঠু’র ভাই সরদার রাজ বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের নামে মামলা করেছেন (নং-২৯)। তবে এ হত্যাকান্ডের সাথে নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থি দলের সম্পর্ক রয়েছে বলে পুরো খুলনায় গুঞ্জন উঠেছে।   
মৎস্য প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ গত শুক্রবার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে খুলনায় চরমপন্থিদের উপস্থিতি রয়েছে বলে স্বীকার করে বলেন, তারা যতোই শক্তিশালী হোক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ বিষয়ে মহানগর আ’লীগের সভাপতি আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক এমপি বলেন, যারা মানুষ হত্যা করে তারা খুনি। এদের সহায়তাকারীদের সনাক্ত করে আইনের আওতায় আনতে হবে।
নগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মিজানুর রহমান মিজান বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন সন্ত্রাসীদের কোন ছাড় দেয়া হবে না। আমিও একইভাবে বলতে চাই অস্ত্রবাজ সন্ত্রাসীদের সনাক্ত ও অবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হোক।  
খুলনা চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি এড. সাইফুল ইসলাম বলেন, সাধারণ ব্যবসায়ীদের নির্ভয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য করার জন্য সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ মুক্ত পরিবেশ করতে হবে। এ জন্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।
জেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ কামরুজ্জামান জামাল বলেন, চরমপন্থি ও অবৈধ অস্ত্র ব্যবহারকারীরা এ সমাজের জন্য হুমকী। তাদের সনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা জরুরী।
খুলনার সুশিল সমাজের বেশ কয়েকজন নেতা বলেছেন, কোন ঘটনা ঘটে যাওয়ার পর আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা যে ধরনের অভিযান পরিচালনা করেন। তবে স্ব-স্ব থানা, ডিবি, র‌্যাব এ জাতীয় ঘটনার আগে নিয়মিত সন্ত্রাস বিরোধী অভিযান চালু রাখে তাহলে এ ধরনের অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমে আসবে। এছাড়া তারা আরও বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে আন্তরিকভাবে দায়িত্বপ্রাপ্ত এলাকার সার্বিক বিষয়ে কাজ করতে হবে।  
কেএমপি কমিশনার নিবাস চন্দ্র মাঝি বলেন, অবৈধ অস্ত্র ব্যবহারকারীদের শনাক্ত ও  তাদের গ্রেফতারে অভিযান বরাবরই নগর পুলিশ করে আসছে। শহরে বেশ কিছু সন্ত্রাসী ও অবৈধ অস্ত্রধারীকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। অনেকে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে মারা গেছে, কেউ কেউ পঙ্গু হয়েছে।
খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ হাবিবুর রহমান বিপিএম বলেন, ইতোপূর্বে যে অপরাধ কর্মকান্ডগুলো ঘটেছে, তার সাথে জড়িতদের শনাক্ত করা হয়েছে। অধিকাংশদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হয়েছে।  তবে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া হত্যাকান্ডের বিষয়ে পুলিশের তদন্ত চলছে। এসকল ঘটনার সাথে জড়িতদের সনাক্তকরণের জন্য কাজ চলছে।

 

 

বার পঠিত

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ



যে কারণে রোজা নষ্ট হয় 

যে কারণে রোজা নষ্ট হয় 

২১ মে, ২০১৮ ০০:৫৯

যে কারণে রোজা নষ্ট হয় 

যে কারণে রোজা নষ্ট হয় 

২১ মে, ২০১৮ ০০:৫৯