খুলনা | মঙ্গলবার | ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ | ৪ পৌষ ১৪২৫ |

ফুলতলার জোড়া খুনের ন্যায় বিচার হোক

২৭ মে, ২০১৭ ০০:১৪:০০

ফুলতলার জোড়া খুনের ন্যায় বিচার হোক


খুলনার ফুলতলা উপজেলার এক সময় চরমপন্থী অধুষিত এলাকা বলে খ্যাত ছিল। খুন, ডাকাতি, চাঁদাবাজি ছিল এখানকার নিত্য দিনের ঘটনা। রক্তাক্ত জনপদ হিসেবে ফুলতলা প্রায় গণমাধ্যমে শিরোনাম হত। নানা নামের বাহিনীর তৎপরতা ছিল। এই জনপদে আতঙ্ক কখনও থামেনি। গেল বৃহস্পতিবার রাতে ফুলতলা উপজেলা সদরে জিলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার আলাউদ্দিন মিঠু ও তার দেহরক্সী নওশের গাজী খুন হয়। নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে ফুলতলা ও অভয়নগর উপজেলা এলাকায়। এর আগে বিএনপি নেতা সরদার মিটুর সহোদর, ফুলতলা সদর ইউপি’র চেয়ারম্যান ২০১০ সালে আবু সাঈদ বাদল, তার পিতা ১৯৯৮ সালে কাশেম মোল্লা খুন হয়। এই পরিবারের খুন একই সূত্রে গাঁথা। একটি চিহ্নিত চক্র এই পরিবারকে নিঃশেষ করার জন্য প্রতি নিয়ত ষড়যন্ত্র করছে। এই পরিবারটি বরাবরই রাজনীতির সাথে জড়িত। বার বার নির্বাচিত হওয়া প্রমাণ করে তাদের জনপ্রিয়তার কমতি নেই। মিঠু উপজেলা পরিষদের এক দফা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। সর্বশেষ ভোট ডাকাতির নির্বাচনে জনগণ অংশ নিতে না পারায় তিনি পরাজিত হন। ফুলতলায় সরদার পরিবার আতঙ্কগ্রস্থ। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। প্রেক্ষাপট উল্লেখ করে বলতে হয় প্রতিষ্ঠিত বিএনপি নেতা কওসার জমাদ্দারের পুত্র জিয়া জমাদ্দার এর কাছে সন্ত্রাসীরা দু’লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। গ্রামীন মাল্টি পারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদকের নিকট থেকে জোরপূর্বক পুলিশ কর্মকর্তা কর্তৃক চেক স্বাক্ষর করিয়ে নেয়ার ঘটনায় আদালতে মামলা হয়েছে।
এখানে একের পর এক অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে যাচ্ছে। এদের প্রতিরোধ করা সম্ভব হচ্ছে না। এ জনপদে অশান্তির আগুন থামাতে হবে। আতঙ্কের অবসান ঘটাতে হবে অবৈধ অস্ত্রধারীদের গ্রেফতার, চরমপন্থীদের নির্মুল, স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিদের ছত্রছায়ায় থাকা উচ্ছৃঙ্খল কর্মীদের আইনের আওতায় আনতে হবে। বিএনপি নেতা মিঠু হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার, হত্যার পরিকল্পনার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করতে হবে। বিলম্ব হলে উদ্দেশ্য ব্যহত হবে। নানা ইস্যু সামনে আসবে। মিঠু হত্যা ধামাচাপা পড়বে। এ প্রসঙ্গে আমাদের সৃষ্ট বক্তব্য এখানকার বাম রাজনীতিক রতন সেন, জাপা নেতা শেখ আবুল কাশেম, এস এম এ রব, আওয়ামী লীগ নেতা মঞ্জুরুল ইমাম, সাংবাদিক হুমায়ুন কবির বালু, মানিক চন্দ্র সাহা, শেখ বেলাল উদ্দীন হত্যার ন্যায় বিচার। জেলা বিএনপি নেতা মিঠু হত্যার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দ্রুত বিচার কার্য সম্পন্ন হোক। আমরা ন্যায় বিচার প্রত্যাশা করি। হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি আমাদের কামনা। শোক সন্তপ্ত পরিবারবর্গের পাশে সতীর্থরা সান্ত্বনার হাত বাড়াবেন এটা আমাদের প্রত্যাশা।

 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ


তোমাদের এই ঋণ কোনদিন শোধ হবেনা----

তোমাদের এই ঋণ কোনদিন শোধ হবেনা----

১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:১০

উৎসবমুখর নির্বাচন সবার কাম্য 

উৎসবমুখর নির্বাচন সবার কাম্য 

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:১০



শীত কষ্টের না হয়ে উৎসবের হয়ে উঠুক

শীত কষ্টের না হয়ে উৎসবের হয়ে উঠুক

১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:১০

নারীর শেকল ভাঙার গান বেগম রোকেয়া

নারীর শেকল ভাঙার গান বেগম রোকেয়া

১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:১০







ব্রেকিং নিউজ